স্কুল ভবন নির্মাণকে কেন্দ্র করে উভয়পক্ষের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ জনতা ও পুলিশসহ আহত ২০

বর্তমান খবর,কক্সবাজার প্রতিনিধি:
কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলার সোনারপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন স্কুল ভবন নির্মাণকে কেন্দ্র করে পুলিশ ও স্থানীয় লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে গুলিবিদ্ধ জনতা ও পুলিশসহ অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন।

২ মে (রোববার) দুপুর ৩টায় এই ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর এলাকায় থমথম অবস্থায় রয়েছে। কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মোঃ মামুনুর রশিদ ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রফিকুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

উখিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আহমেদ সঞ্জুর মোর্শেদ জানান, সোনারপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের একটি নতুন ভবন নির্মাণকে কেন্দ্র করে দীর্ঘদিন ধরে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ও স্থানীয় লোকজনের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। এর মধ্যে প্রশাসনিক কার্যাদী সম্পন্ন করে আজ রোববার ওই ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নিজাম উদ্দিন আহমেদ ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) ঘটনাস্থলে যান।

কিন্তু ওই সময় বিরোধীতাকারী লোকজন ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের বাধা দেয় এবং এক পর্যায়ে উত্তেজিত জনতা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) এর গাড়ি ভাংচুর করেছে। এর মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়লে ঘটনা নিয়ন্ত্রণের জন্য পুলিশ মোতায়েন করা হলে পুলিশ ও এলাকাবাসীর মধ্যেও সংঘর্ষ সৃষ্টি হয়।

স্থানীয় লোকজন দাবি করেন, পুলিশের ছোঁড়া শর্টগানের গুলিতে মহিলাসহ স্থানীয় তিনজন গুলিবিদ্ধ হয়। এছাড়া আহত হয় আরো অন্তত ১৫ জনের বেশি।

অন্যদিকে স্থানীয় লোকজনের হামলায় পুলিশের কয়েকজন সদস্যও আহত হয়েছে বলে জানিয়েছেন থানার ওসি।
নতুন স্কুল ভবন নির্মাণের বিরুদ্ধে অবস্থানকারী স্থানীয়দের দাবী বৃহত্তর সোনারপাড়ার একমাত্র খেলার মাঠ দখল করে স্কুল ভবন নির্মাণ করা হলে এলাকায় মাঠ শূন্য হয়ে যাবে।

এই খেলার মাঠে শুধু খেলাধুলা নয়,জানাজার নামাজ সহ অনেক আনুষ্ঠানিক কাজ করা হয়ে থাকে।

আরও পড়ুন
Loading...