সাপাহারে আদিবাসীর বাড়ি ঘর ভাঙ্গচুর ও মালামাল লুট

বর্তমান খবর,সাপাহার(নওগাঁ)প্রতিনিধি:
নওগাঁর সাপাহারে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে একটি আদিবাসী পরিবারের উপর অমানুষিক নির্যাতন সহ বসত বাড়ি ভাঙ্গচুর ও লুটপাটের অভিযোগ উঠেছে।

ভুক্তভোগী উপজেলার সাড়কডাঙ্গা গ্রামের আদিবাসী কালুস মুর্মুর স্ত্রী সেলিনা বাস্কি(৪৫)এর থানায় দাখিলকৃত অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে,একই গ্রামের মোস্তাকিম এর ছেলে আঃ সোবাহান আলী, মোজাফর আলির ছেলে আতাবুর রহমান,মুজিবুর রহমান,ও গুপিনাথের ছেলে বাজুন ও জুল হাই এর ছেলে লেলকু জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধে দীর্ঘদিন ধরে তাদেরকে নানা ভাবে ভয় ভিতি প্রদর্শন করে আসছিল।

ঘটনার দিন গত ২৪ এপ্রিল সকাল ১১টার সময় প্রতিপক্ষের ওই লোকজন বে- আইনী জনতায় দলবদ্ধ হয়ে আদিবাসী গৃহিনী সেলিনা বাস্কির বাড়িতে প্রবেশ করে তার পরিবারের লোকজনকে
এলোপাতাড়ী ভাবে মারপিট করে নিজ বাড়ি থেকে তাদের সবাই কে বের করে দেয়। এ সময় তারা সন্ত্রাসী কায়দায় মাটির তৈরী ওই বাড়ির দেয়াল গুলো ভেঙ্গে চুরমার করে দিয়ে তাদের আসবাব পত্র ও ঘরের টিন বাঁশ কাঠ মালামাল লুটপাট করে নিয়ে যায়।

নিরুপায় হয়ে ওই আদিবাসী পরিবারের সদস্যরা নিজের ভাঙ্গা বাড়িতেই সেদিন রাতে অবস্থান করে। রাত ১২টার দিকে প্রতিপক্ষের লোকজন তাদের উপর আবারো চড়াও হয়।

এ সময় মায়ের নির্যাতনের দৃশ্য দেখে তার শিশু পুত্র প্রণয় মুর্মু এগিয়ে আসলে হামলাকারীগণ তাকেও মারধর করে। এ ঘটনার শিকার নির্যাতিত আদিবাসী গৃহিনী সেলিনা বাস্কি স্থানীয় থানায়
জড়িতদের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দাখিল করলে থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।

এ বিষয়ে অভিযুক্তদের সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করা হলে জৈনক আতাউর এর ছেলে
খোরশেদ জানান যে তারাই ওই সম্পত্তি মালিক। ওই সম্পত্তি নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে আদালতে মামলা চলমান রয়েছে।

উল্লেখিত ঘটনার বিষয়ে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নিবেন বলে থানার ওসি তারেকুর রহমান সরকার জানান।

আরও পড়ুন
Loading...