শ্রীপুরে বসতঘর থেকে মা সাপসহ২ ০টি সাপের বাচ্চা সাপ উদ্ধার

বর্তমান খবর,শ্রীপুর প্রতিনিধি :
মাগুরার শ্রীপুরে একটি বসতঘর থেকে ২০টি বিষধর গোখরা সাপের বাচ্চাসহ মা গোখরা সাপ উদ্ধার করেছে স্থানীয়রা। বুধবার সন্ধ্যায় শ্রীপুর উপজেলার আমলসার ইউনিয়নের রাজাপুর গ্রামের কানাই কান্তি নন্দীর বসতঘর থেকে এ বিষধর সাপ ও বাচ্চা গুলো উদ্ধার করা হয়।

কানাই কান্তি নন্দী জানান, আগে এই ঘরটি গোয়ালঘর হিসেবে ব্যবহার করা হলেও এখন পেয়াজ রাখার জন্য ঘরটি ব্যবহার করছি। ঘরের বাহিরে গত ৩ দিন ধরে গোখরা সাপের বাচ্চা চলাচল করতে দেখি। তাৎক্ষণিকভাবে আমি স্থানীয়দের সহযোগিতায় সাপের বাচ্চা ৩টি মেরে ফেলি। কিন্তু সন্দেহ হয় যে বাচ্চাগুলো হয়তো ঘরের মধ্যে কোথাও যাচ্ছিল। এমন সন্দেহ থেকেই বুধবার সন্ধ্যায় স্থানীয় লোকজন এবং সাপুড়ে নিয়ে ঘরের মেঝের মাটি কোপাতে শুরু করি। এর পরপরই মেঝে থেকে বেরিয়ে আসতে থাকে একের পর এক ২০টি বিষধর গোখরা সাপের বাচ্চা। ঘরের অর্ধেক মাটি কাটা শেষ হলে চোঁখে পড়ে বড় সাপের খোলস পরে স্থানীয় সাপুড়ে আবেদ আলী চেষ্টা চালিয়ে মা সাপকে জীবিত অবস্থায় ধরতে সক্ষম হয়।” এ ঘটনার পর থেকেই ওই এলাকায় সাপ আতঙ্ক বিরাজ করছে বলে জানান কানাই কান্তি নন্দী।

সাপুড়ে আবেদ আলী বলেন, উদ্ধার হওয়া বিষধর মা সাপটি প্রায় সাড়ে পাঁচ ফুট লম্বা। সাপটি গোখরা জাতের। গোখরা সাধারণত ঘরের মেঝেতে থাকে। মাটির নিচে ডিম পাড়ে এবং মা সাপটি ডিমের আশে পাশে অবস্থান করে। বিষধর এই জাতের সাপের কামড়ে মানুষের মৃত্যু হতে পারে।

আরও পড়ুন
Loading...