লকডাউনের পরও বাড়ছে সংক্রমণ

বর্তমান খবর : দেশের বিভিন্ন স্থানে লকডাউনের পরও করোনার সংক্রমণ বেড়ে চলেছে। সাতক্ষীরা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালকে করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতাল ঘোষণা করা হয়েছে।

নওগাঁয় সদর হাসপাতালে এক মাস বাক্সবন্দি রয়েছে দুইটি আইসিইউ বেড। নাটোরে লকডাউনের পরেও সংক্রমণের হার বেশি। নতুন করে ফকিরহাটে এক দিনে সংক্রমণের হার ৬৫ শতাংশ।

সাতক্ষীরা : মৃত্যু ও করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধিতে শুক্রবার থেকে সাতক্ষীরায় লকডাউন বাড়ল আরো এক সপ্তাহ। বৃহস্পতিবার জেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির ভার্চুয়াল মিটিংয়ে লকডাউন বাড়ানোর সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেন জেলা প্রশাসক এস এম মোস্তফা কামাল।

আলোচনায় জানানো হয়, মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালকে করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতাল হিসেবে ঘোষণার জন্য স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে প্রেরিত পত্র কার্যকরের নির্দেশ দিয়েছেন সংশ্লিষ্ট অধিদপ্তর। এছাড়াও মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে অন্যান্য রোগী ভর্তি বন্ধ করে সদর হাসপাতালে ভর্তির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

নওগাঁ : জেলায় প্রায় দেড় মাস আগে আরটিপিসিআর ল্যাব ও আইসিইউ বেড স্থাপনের ঘোষণা দেওয়ার পরও করোনার নমুনা পরীক্ষার জন্য ল্যাব ও বেড স্থাপন করা সম্ভব হয়নি।

নওগাঁর সিভিল সার্জন ও আধুনিক হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত তত্ত্বাবধায়ক, ডা. এ বি এম আবু হানিফ জানান, ৯ মে নওগাঁ সদর আধুনিক হাসপাতালে আরটিপিসিআর ল্যাব ও দুইটি আইসিইউ বেড স্থাপনের অনুমোদন দেয় স্বাস্থ্য বিভাগ। প্রায় এক মাস আগে ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তরের তত্ত্বাবধানে ঠিকাদারের মাত্র দুইটি আইসিইউ বেড নওগাঁ হাসপাতালে পৌঁছায়। ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানের দক্ষ লোকবলের অভাবে তা বাক্সবন্দি রয়েছে। তিনি আরো জানান, নওগাঁয় আরো আইসিইউ বেড প্রয়োজন। তবে যে দুটি বেড পাওয়া গেছে সেগুলোই আগে চালু করা প্রয়োজন।

নাটোর : নাটোর পৌরসভা ও সিংড়া পৌরসভায় শুক্রবারে দ্বিতীয় দফার লকডাউনের দ্বিতীয় দিন চলছে। তবুও শহর এলাকায় সংক্রমণের হার বেড়েই চলেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় ৯২ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৬৫ জনের সংক্রমণ পাওয়া গেছে। সংক্রমণের হার ৭০.৬৫ শতাংশ বলে জানিয়েছেন সিভিল সার্জন ডা. কাজী মিজানুর রহমান।

জয়পুরহাট : জেলায় গত এক সপ্তাহে ১ হাজার ৪৮৫ জনের নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্ত হয়েছে ৪০১ জনের শরীরে। একই সময়ে করোনায় দুই জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানায় জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। জেলা সিভিল সার্জন ডা. ওয়াজেদ আলী এই তথ্য জানান। জানা গেছে, জেলা সদর ও পাঁচবিবি উপজেলায় তুলনামূলক করোনা আক্রান্তের হার বেশি।

ফুলবাড়ী (কুড়িগ্রাম) : ফুলবাড়ীতে অন্য বছরের তুলনায় এ বছর অস্বাভাবিক হারে বাড়ছে জ্বর-সর্দির প্রকোপ। সীমান্তঘেঁষা বালারহাট বাজারের পল্লি চিকিত্সক ইয়াকুব আলী জানান, প্রত্যন্ত অঞ্চলগুলোতে জ্বর, ডায়রিয়া দেখা দেওয়ায় ওষুধের চাহিদা বেড়েছে অনেক।

এছাড়াও করোনার ভয়ে অনেকেই তাদের অসুস্থতার বিষয়টি গোপন রাখছে। সিভিল সার্জন ডা. হাবিবুর রহমান জানান, সীমান্ত এলাকাগুলোতে জ্বরের প্রকোপ বৃদ্ধি পেয়েছে। উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগকে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) : দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলায় করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঊর্ধ্বমুখী। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত পৌরশহরে ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান চালিয়ে ২২ জনকে দণ্ডবিধি ও সড়ক পরিবহন আইনে ৯ হাজার ৮০০ টাকা অর্থদণ্ড করা হয়েছে।

নাগেশ্বরী (কুড়িগ্রাম) : ভারত সীমান্তঘেঁষা গ্রামগুলোসহ উপজেলার প্রায় বাড়িতে দেখা দিয়েছে জ্বরের সংক্রমণ। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সাজিদ হাসান সিদ্দিকী জানান, এখন সিজেনাল ফ্লু চলছে। জ্বর-সর্দি হলেই যে করোনা তেমনটি নয়। তবে জ্বর বেশি থাকলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

আরও পড়ুন
Loading...