র‍্যাবের পৃথক অভিযানে গাঁজার গাছ উৎপাদনকারীসহ ৪ জুয়াড়ি আটক

বর্তমান খবর,জয়পুরহাট প্রতিনিধিঃ
র‍্যাব-৫, সিপিসি-৩, জয়পুরহাট র‍্যাব ক্যাম্পের একটি অপারেশনাল দল পৃথক পৃথক অভিযান চালিয়ে গাঁজার গাছ উৎপাদনকারী দেলোয়ার হোসেন (৩৮) নামে একজন ও জুয়া খেলার অপরাধে শ্রী রাজেন পাহান (৩২),মাসুদ রানা (৩৭),রফিকুল ইসলাম (৩৬) ও মোঃ হাসান আলী (২৮) নামে ৪ জন জুয়াড়িকে আটক করেছে র‍্যাব সদস্যরা।

শুক্রবার(৯ জুলাই) সন্ধায় সদর উপজেলার পাহুনন্দা গ্রাম থেকে ৩ কেজি ২৫০ গ্রাম ওজনের গাঁজার গাছসহ উৎপাদনকারীকে আটক করা হয়। অপরদিকে সদর উপজেলার মুজাহিদপুর সিদ্দিকিয়া দাখিল মাদ্রাসার মাঠের উত্তর পশ্চিম কর্ণার থেকে ৪ জন জুয়াড়িকে হাতেনাতে আটক করা হয়। যা র‍্যাব-৫, সিপিসি-৩, জয়পুরহাট র‍্যাব ক্যাম্পের পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

র‍্যাব-৫, সিপিসি-৩, জয়পুরহাট র‍্যাব ক্যাম্পের একটি অপারেশনাল দল কোম্পানী কমান্ডার লেফটেন্যান্ট কমান্ডার তৌকির, (ই), বিএন এবং স্কোয়াড কমান্ডার ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট মারুফ হোসেন খান এর নেতৃত্বে শুক্রবার ৯ জুলাই পৃথক দুটি বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে জয়পুরহাট জেলার সদর থানাধীন পাহুনন্দা গ্রামস্থ হতে ৩ কেজি ২৫০ গ্রাম ওজনের একটি গাঁজার গাছসহ পাহুনন্দা গ্রামের আলহাজ্ব তনছের আলী সরদারের ছেলে গাঁজা উৎপাদনকারী দেলোয়ার হোসেনকে আটক করে। অপরদিকে সদর থানাধীন মুজাহিদপুর সিদ্দিকিয়া দাখিল মাদ্রাসার মাঠের উত্তর পশ্চিম কর্ণার থেকে জুয়া খেলার সময়ে ইছুয়া গ্রামের যতিন পাহানের ছেলে রাজেন পাহান,মুজাহিদপুর গ্রামের নায়েব আলীর ছেলে মাসুদ রানা ও ঈশ্বরপুর গ্রামের দুলাল হোসেনের ছেলে হাতেনাতে আটক করা হয়। পরবর্তীতে ধৃত আসামীদের বিরুদ্ধে জয়পুরহাট জেলার সদর থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন-২০১৮ এবং প্রকাশ্য জুয়া আইন-১৮৬৭ অনুসারে পৃথক পৃথক মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এ বিষয়ে স্কোয়াড কমান্ডার ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট মারুফ হোসেন খান বলেন,বর্তমান প্রেক্ষাপটে সমাজে মাদকের ভয়াল থাবার বিস্তার রোধকল্পে সকল মাদক সম্রাটদের আটকসহ মাদক বিরোধী অভিযানে র‍্যাব সর্বদা সক্রিয় ভূমিকা পালন করে আসছে। তিনি আরও বলেন প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ এবং র‍্যাব মহাপরিচালকের দিক নির্দেশনায় র‍্যাব মাদকের বিরুদ্ধে গত ০৪ মে ২০১৮ তারিখ হতে বিশেষ অভিযান শুরু করেছে যা মাদক নির্মূল না হওয়া পর্যন্ত আমাদের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

আরও পড়ুন
Loading...