রৌমারীতে সড়ক সংস্কারে অনিয়ম- এলাকাবাসি বাধা

বর্তমান খবর,রৌমারী(কুড়িগ্রাম)প্রতিনিধি ঃ
কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজেলার দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়নের হরিণধরা তেকানি গ্রামে জেসমিনের কুড়া হতে প্রতিবন্ধী স্কুল পর্যন্ত বড়াইকান্দি ভায়ার ১ কিঃ মিঃ সড়ক সংস্কার কাজে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগে কাজ বন্ধ করে দিয়েছে কতৃপক্ষ।

প্রাকলন বহির্ভূত নিম্নমানের ইট,খোয়া ও ধুলাবালি ব্যাবহারের অভিযোগ স্থানীয় এলাকাবাসির। গতকাল দুপুরের দিকে দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়নের তেকানি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

রৌমারী এলজিইডি সূত্রে জানা গেছে, ২০২০-২১ইং অর্থ বছরে “গ্রামীণ সড়ক মেরামত” সংরক্ষনের আওতায় রৌমারী উপজেলার হরিণধরা গ্রাম এফআরবি হতে বড়াইকান্দি ভায়া তেকানি গ্রাম সড়কে ১কিঃমিঃ রক্ষণাবেক্ষণ কাজের টেন্ডার দেয়া হলে মেসার্স আরশি কনষ্ট্রাকশন সংস্কার কাজের টেন্ডার পায়।

সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার নিম্নমানের সংস্কার সামগ্রী দিয়ে দায় সারা কাজ শুরু করলে এলাকাবাসী কাজে বাধা দেয়। ঠিকাদার তাদের বাধা অবজ্ঞা করে কাজ করতে থাকলে অভিযোগকারিরা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে অবগত করেন। পরে এলাকারবাসির অভিযোগের প্রেক্ষিতে
তদন্ত সাপেক্ষে কাজ বন্ধ করে দেন কতৃপক্ষ।

এ ব্যাপারে তেকানি গ্রামের শের আলী মেম্বার,বাইজিদ বোস্তামি ও ইসরাইল মিয়া অভিযোগ করে বলেন,রাস্তার ব্যবহৃত ইটগুলো একেবারে নিম্নমানের। বালুর বদলে ধুলা দিয়ে দায়সারা কাজ করে যাচ্ছে তাই কাজ শেষ হওয়ার আগেই অনেক জায়গায় ভাঙতে শুরু করেছে।

তারা আরও বলেন,এভাবে সরকারের অর্থ নষ্ঠ করা ছাড়া আর কিছুই না। এতে করে জনগণ আরও ভোগান্তিতে পরবে। কথা হয় মেসার্স আরশি কনষ্ট্রাকশনের সত্বাধিকারীর সাথে তিনি অনিয়মের কথা অস্বীকার করে বলেন,ওই সড়কে রোলার ঢোকেনা অনেক কষ্টের মধ্য দিয়ে সড়কটি সংস্কার করা হচ্ছে। তাছাড়া আমি কুড়িগ্রাম থেকে সব সময় ওখানে যেতে না পারায় রৌমারীর রহিম বাদশা নামের একজনকে দেখভাল করার দায়িত্ব দিয়েছি। আপনি ওর সাথে কথা বলে দেখেন কি বলে সে।

এ ব্যপারে রৌমারী উপজেলা প্রকৌশলী আব্দুল জলিল বলেন,মুঠোফোনে এলাকাবাসির অভিযোগ পেয়ে সরেজমিন পরিদর্শন করে অভিযোগের সত্যতা পেয়েছি। পরে ঠিকাদারকে নিম্নমানের ইটগুলো অপসারণ করে টেন্ডারে প্রাকলন অনুযায়ী কাজ করার নির্দেশ দিয়ে এসেছি।

আরও পড়ুন
Loading...