Ultimate magazine theme for WordPress.

বেনাপোলে মাদক নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তরের…

কমলগঞ্জে স্বামীকে অচেতন করে স্ত্রীর পরকিয়ায়…

রিজেন্ট হাসপাতালের পলাতক ভয়ংকর দালালরা এখন উত্তরা আধুনিক মেডিকেলে

0 ৯৩

বর্তমান খবর বিশেষ প্রতিনিধি : উত্তরা আধুনিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালকে কেন্দ্র করে গড়ে ওঠা সংঘবদ্ধ দালালরা হাসপাতালের জরুরি বিভাগ থেকে ঢাকা মেডিকেলে স্থানান্তর রোগীদের স্বল্প খরচে অল্প দিনে সুস্থতার প্রলোভন দেখিয়ে প্রাইভেট ক্লিনিকে নিয়ে যান বলে অভিযোগ স্বজনদের। আর এসব রোগীদের বেশীর ভাগই দূরবর্তী জেলা থেকে আগত। তাদের অধিকাংশই অসহায় ও দিনমজুর বলে জানা যায়।

ভর্তির পরে দালালরা রোগীদের চিকিৎসার নামে স্বজনদের নিঃস্ব বানানোর একাদিক অভিযোগ রয়েছে এ প্রতিবেদকের হাতে। প্রাইভেট ক্লিনিক নিয়ে এটি বর্তমান খবর এর ধারাবাহিক প্রতিবেদনের ১ম পর্ব।

সরেজমিন অনুসন্ধানে দেখা যায়, উত্তরার প্রায় ১৫টি ব্যক্তি মালিকানাধীন ক্লিনিকগুলোর আয় ব্যায় দালালদের হাত ধরেই দাড়িয়ে আছে। রোগীদের থেকে জোড়পূর্বক আদায়কৃত অর্থের ৩০ ভাগ দিতে হয় উত্তরা আধুনিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল থেকে প্রলোভন দেখিয়ে রোগী নিয়ে আসা দালালদের। প্রশাসন দালালদের দমনে ব্যাপক পদক্ষেপ নিলেও পরিশ্রমবিহীন মাসিক মোটা অংকের টাকার লোভে দালালদের সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলছে, ভয়ংকর হচ্ছে তাদের মরণ ফাঁদ।

উত্তরা ১১ নং সেক্টরের ৫/ বি রোডে অবস্থিত লেক ভিউ স্পেশালাইজ্ড ক্লিনিকটিতে দেখা যায়, দালালদের পাঠানো রোগী ছাড়া অন্য কারো পদচাড়না নেই। মাসে ৬ লক্ষ টাকা বাড়ী ভাড়া দিয়েও ক্লিনিকটি টিকে আছে সংঘবদ্ধ দালালদের সহানুভূতির মাধ্যমে বলে জানালেন বর্তমান ব্যাবস্থাপনা পরিচালক ও টঙ্গী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর সাবেক দালাল সুমন পাটোয়ারী। ক্লিনিকটিতে কয়েকবার ম্যাজিষ্ট্রেট এর অভিযান ও জরিমানা হলেও থেমে নেই তাদের ভয়ানক কর্মকান্ড।

তারা ক্লিনিকটিতে আয় বাড়াতে মার্কেটিং বিভাগের প্রধান হিসেবে নিয়োগ দিয়েছেন, বন্ধ হয়ে যাওয়া বিতর্কিত রিজেন্ট হাসপাতালের মার্কেটিং বিভাগের প্রধান ও প্রতারক সাহেদের স্বাস্থ্য উপদেষ্টা রাজুকে। রিজেন্ট হাসপাতালে অভিযান ও সাহেদকে প্রতারনার দায়ে গ্রেফতারের পর মামলা ও গ্রেফতার থেকে নিজেকে বাঁচাতে ঢাকা ছেড়ে পালিয়ে যায় রাজু।

দীর্ঘ এক বছর পলাতক থাকার পর লেক ভিউ স্পেশালাইজ্ড ক্লিনিকটিতে কমিশনে মার্কেটিং বিভাগের প্রধান হিসেবে চাকরি নেন তিনি। রিজেন্ট হাসপাতালে রোগীর স্বজনদের আটকিয়ে নির্যাতন ও টাকা আদায়ের ঘটনা ছিল ২০২০ সালে দেশের সংবাদ বিভাগের অন্যতম প্রচারিতস সংবাদ। গত ৪ মাসে প্রায় ২০টি রোগীর অভিযোগ রয়েছে এ স্পেশালাইজ্ড ক্লিনিকটির বিরুদ্ধে।

তাদের সকলকের ভাগ্যে জুটে ছিল দালালদের মাধ্যমে ক্লিনিকটিতে ভর্তি হওয়ার সৌভাগ্য। এদের মধ্যে অনেকে করানো রোগীও ছিলেন বলে অভিযোগ করেছেন নিঃস্ব হওয়া রোগীর পরিবার। চলবে …….

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.