রবিবার করোনায় সর্বোচ্চ ১৫৩ জনের মৃত্যুর রেকর্ড, মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ১৫ হাজার

বর্তমান খবর : দেশে করোনাভাইরাস শনাক্তের ৪৮৩তম দিনে গত ২৪ ঘন্টায় এ যাবতকালের একদিনে সর্বোচ্চ রেকর্ড সংখ্যক ১৫৩ জন মারা গেছেন। এদের মধ্যে পুরুষ ৯৬ ও নারী ৫৭ জন। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ১৫ হাজার। গত ২৬ জুন দেশে মৃত্যু ১৪ হাজারের ঘর অতিক্রম করে। ওইদিন পর্যন্ত মারা যায় ১৪ হাজার ৫৩ জন। মাত্র ৮ দিনে এই সংখ্যা ১৫ হাজার ছাড়িয়েছে।

১ জুলাই সর্বোচ্চ রেকর্ড সংখ্যক ১৪৩ জন মারা যায়। গতকাল ১৩৪ জন, আগের দিন ১৩২ জন, ২৭ জুন ১১৯ জন, ৩০ জুন ১১৫, ২৯ জুন ১১২ জন এবং ২৮ জুন মারা যান ১০৪ জন। এভাবে প্রতিদিনই দেশে মৃত্যুর নতুন রেকর্ড হচ্ছে। এখন পর্যন্ত দেশে করোনা অতিমারিতে ১৫ হাজার ৬৫ জন মানুষের প্রাণহানী ঘটেছে। এদের মধ্যে পুরুষ ১০ হাজার ৬৭৬ জন (৭০.৮৭ শতাংশ) এবং নারী ৪ হাজার ৩৮৯ জন (২৯.১৩ শতাংশ)।

গতকালের চেয়ে আজ ১৯ জন বেশি মারা গেছেন। করোনা শনাক্তের বিবেচনায় আজ মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৫৯ শতাংশ। গত ২৮ জুন থেকে মৃতের হার একই রয়েছে।
গত ২৪ ঘন্টায় মৃতদের বয়স বিশ্লেষণে দেখা যায়, ২১ থেকে ৩০ বছর বয়সী ৩ জন, ৩১ থেকে ৪০ বছর বয়সী ১১ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছর বয়সী ২৪ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছর বয়সী ৪৫ জন এবং ষাটোর্ধ বয়সী ৭০ জন রয়েছেন। মৃতদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৪৬ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ১৫ জন, রাজশাহী বিভাগে ১২ জন, খুলনা বিভাগে সর্বোচ্চ ৫১ জন, বরিশাল বিভাগে ৩ জন, সিলেট বিভাগে ২ জন, রংপুর বিভাগে ১৫ জন এবং ময়মনসিংহ বিভাগে ৯ জন রয়েছেন। এদের মধ্যে ১১৯ জন সরকারি, ২২ জন বেসরকারি হাসপাতালে, ৯ জন বাসায় মারা গেছেন এবং মৃতাবস্থ্ায় হাসপাতালে আনা হয়েছে ৩ জনকে।

রবিবার স্বাস্থ্য অধিদফতরের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়। অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত এই সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত ২৪ ঘন্টায় ২৯ হাজার ৮৭৯ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৮ হাজার ৬৬১ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। গতকাল ২২ হাজার ৬৮৭ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৬ হাজার ২১৪ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছিল। গতকালের চেয়ে আজ ২ হাজার ৪৪৭ জন বেশি শনাক্ত হয়েছেন।

দেশে গত ২৪ ঘন্টায় নমুনা পরীক্ষার বিবেচনায় শনাক্তের হার ২৮ দশমিক ৯৯ শতাংশ। আগের দিন এই হার ছিল ২৭ দশমিক ৩৯ শতাংশ। গতকালের চেয়ে আজ শনাক্তের হার ১ দশমিক ৬ শতাংশ বেশি। এদিকে ঢাকা জেলায় (মহানগরসহ) ২৪ ঘন্টায় ১২ হাজার ৯৭৪ জনের নমুনা পরীক্ষায় শনাক্ত হয়েছেন ২ হাজার ৯৪৩ জন। ঢাকায় শনাক্তের হার ২২ দশমিক ৬৮ শতাংশ। গতকাল ১০ হাজার ১২৭ জনের নমুনা পরীক্ষায় শনাক্ত হয়েছেন ২ হাজার ৮৫৪ জন, ২৮ দশমিক ১৮ শতাংশ। এই জেলায় গত ২৪ ঘন্টায় মারা গেছেন ২২ জন, গতকাল মারা যায় ১৭ জন।

স্বাস্থ্য অধিদফতর জানায়, দেশে এ পর্যন্ত মোট ৬৭ লাখ ২৩ হাজার ৫৬০ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৯ লাখ ৪৪ হাজার ৯১৪ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এ পর্যন্ত মোট পরীক্ষার বিবেচনায় শনাক্তের ১৪ দশমিক ০৫ শতাংশ।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে গত ২৪ ঘন্টায় হাসপাতাল এবং বাসায় মিলিয়ে সুস্থ হয়েছেন ৪ হাজার ৬৯৮ জন। গতকাল সুস্থ হয়েছিলেন ৩ হাজার ৭৭৭ জন। গতকালে চেয়ে আজ ৯২১ জন বেশি সুস্থ হয়েছেন। দেশে এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৮ লাখ ৩৩ হাজার ৮৯৭ জন। আজ শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮৮ দশমিক ২৫ শতাংশ। গতকাল এই হার ছিল ৮৮ দশমিক ৫৭ শতাংশ। গতকালের চেয়ে আজ সুস্থতার হার দশমিক ৩২ শতাংশ কম।

বিজ্ঞপ্তিতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানায়, করোনাভাইরাস শনাক্তে গত ২৪ ঘন্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ২৯ হাজার ৩১৫ জনের। আগের দিন নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল ২২ হাজার ৭০৩ জনের। গতকালের চেয়ে আজ ৬ হাজার ৬১২টি নমুনা বেশি সংগ্রহ হয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ২৯ হাজার ৮৭৯ জনের। আগের দিন নমুনা পরীক্ষা হয়েছিল ২২ হাজার ৬৮৭ জনের। গতকালের চেয়ে আজ ৭ হাজার ১৯২টি নমুনা বেশি পরীক্ষা হয়েছে।

আরও পড়ুন
Loading...