ভালোবাসার টানে আবার অভিনয়ে জেনি

বর্তমান খবর,রনজু সরকার : জেনি, টিভি নাটকের দর্শকপ্রিয় এমনই একটি মুখ যে মুখটি দর্শক এখনো প্রতিনিয়ত মিস করেন। দর্শক আশা করেন যে টিভি নাটকে জেনি নিয়মিত থাকবেন। কারণ জেনি-একজন অভিনয়ে সিদ্ধহস্ত শিল্পী।

বিশেষত জেনি অভিনীত রমিজের আয়না,একটা ফোন করা যাবে প্লিজ,চিনিগুড়া প্রেম,উড়োজাহাজ,গল্পটা চাইলেই বদলে দেয়া যেতো,জোকার’সহ আরো বেশকিছু জনপ্রিয় নাটক যারা দেখেছেন তারা জানেন জেনি কেমন অভিনেত্রী এবং তারা জেনি’র অভিনয়ের প্রেমে পড়েছেন,মুগ্ধ হয়েছেন।

সেসব দর্শক সবসময়ই চান জেনি যেন অভিনয়ে নিয়মিত থাকেন। কিন্তু গেলো প্রায় দুই বছর অভিনয়ে জেনির অনুপস্থিতি ছিলো। কারণ হিসেবে বর্তমান খবরকে জেনি বলেন,‘ মূলত দুটো কারণে অভিনয়ে আমি অনুপস্থিত ছিলাম কিছুদিন। প্রথমত যে ধরনের কাজ হচ্ছিলো সেসব কাজ নিয়ে আমি একদমই খুশী ছিলাম না। গতানুগতিক গল্পের কাজের প্রস্তাব আসতে শুরু করেছিলো। অথচ তার আগেই আমি অনেক ভালো ভালো গল্পের কাজ করেছি।

তাছাড়া পরিবেশটাতেও কেমন যেন একটা ধ্বস নেমে এসেছিলো। সবমিলিয়ে আমি নিজেকে একটু দূরে রেখেছিলাম। কারণ সেই সময়টাতে আমি কাজ করার পক্ষপাতি ছিলাম না। কিন্তু দর্শকের ভালোবাসার প্রতি শ্রদ্ধা রেখে আবার অভিনয়ে ফিরেছি। গল্প এবং আমার চরিত্র ভালোলাগায় এখানে কেউ থাকেনা নাটকে অভিনয় করছি।’

বাংলাদেশ টেলিভিশনে প্রচারের অপেক্ষায় নির্মিত অনিমেষ আইচের রচনা ও পরিচালনায় ‘এখানে কেউ থাকেনা’ধারাবাহিকে অভিনয়ের মধ্যদিয়ে জেনি আবারো অভিনয়ে ফিরেছেন। অবশ্য জেনি জানান এই মাঝখানের সময়টাতে তিনি পড়াশুনা নিয়েও ব্যস্ত ছিলেন। বিরতির আগে জেনি সর্বশেষ রুলীন রহমানের একটি ধারাবাহিকে অভিনয় করেছিলেন।

এদিকে আজ জেনির জন্মদিন। কিন্তু জন্মদিন নিয়ে কোন পরিকল্পনা নেই। কারণ সংস্কৃতি অঙ্গনের অনেকেই করোনা আক্রান্ত,কারো কারো শারীরিক অবস্থা খুবই খারাপ। আবার কেউ কেউ করোনা’তে মারাও যাচ্ছেন। সবমিলিয়ে জেনির মনও ভালো নেই।

একজন অভিনেত্রী হলেও জেনিও সাধারণ একজন মানুষ। তাই অভিনয়ে,গানে তারও ভালোলাগার মানুষ রয়েছে। টিভি নাটকে তার প্রিয় শিল্পীদের মধ্যে রয়েছে হুমায়ূন ফরীদি,আলী যাকের,সুবর্ণা মুস্তাফা,ফজলুর রহমান বাবু,শমী কায়সার,তারিন,মোশাররফ করিম,চঞ্চল চৌধুরী, অপূর্ব,রুনা খান,শ্রাবস্তী দত্ত তিন্নী। সহশিল্পী হিসেবে ভীষণ ভালোলাগে জিতু আহসান ও ইন্তেখাব দিনারকে। সিনেমায় ভালোলাগে সালমান শাহ’কে। ভালোলাগে মৌসুমী,শাবনূর ও পূর্ণিমা’কে।

পূর্ণিমা’র ব্যক্তিত্ব জেনিকে মুগ্ধ করে। গানে তার প্রিয় রুনা লায়লা ও মমতাজ। ভালোলাগে অ্যান্ড্রু কিশোর,পার্থ বড়ুয়া,আসিফ’র কন্ঠ। তবে গায়কীর পাশাপাশি গান গাওয়ার সময় উচ্চারণের প্রতি বিশেষ মনোযোগের কারণে ভালোলাগে বেশি বাপ্পা মজুমদারের গায়কী। চিরকুটের ইমনের গীটার বাজানো ভীষণ প্রিয় জেনির।

আরও পড়ুন
Loading...