বীরগঞ্জে ৪ হাত ও ৪ পা ওয়ালা এক শিশুর স্বাভাবিক জন্ম হয়েছে

বর্তমান খবর,বীরগঞ্জ(দিনাজপুর)প্রতিনিধিঃ
দিনাজপুরের বীরগঞ্জ পৌরশহরের খানসমা রোডস্থ বীরগঞ্জ ক্লিনিকে নরমাল ডেলিভারিতে ৪ হাত ও ৪ পা বিশিষ্ট এক পুত্র সন্তানের জন্ম হয়েছে। পার্শ্বতী কাহারোল উপজেলার মুকুন্দপুর ইউনিয়নের রামপুর গ্রামের দিনমুজুর মো. গোলাম রব্বানীর স্ত্রী রুনা লায়লা বীরগঞ্জ ক্লিনিকে স্বাভাবিক ভাবে(নরমালে)৪ জুন শুক্রবার ভোর ৫ টায় ৪ হাত ও ৪ পা বিশিষ্ট শিশু পুত্রটির জন্ম দেয়। শিশুটির জন্মের পর উৎসুক মানুষ এক নজর শিশুটিকে দেখতে সেখানে ভিড় জমায়।

বীরগঞ্জ ক্লিনিকের পরিচালক বেলাল হোসেন জানায়,৪ জুন শুক্রবার ভোরে জন্ম নেওয়া শিশুটিকে প্রাথমিক ভাবে শিশু বিশেষজ্ঞ ডাঃ মনীন্দ্র নাথ রায়ের কাছে চিকিৎসার জন্য নিয়ে গেলে তিনি শিশুটিকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পরামর্শ দেয়। সকাল ১০ টার দিকে তারা চলে যাওয়ার সময় পযর্ন্ত শিশুটি ও তার মা রুনা লায়লা সুস্থ ছিলো। তবে জরুরীভাবে শিশুটির উন্নতমানের চিকিৎসার প্রয়োজন বলে ডাক্তারের পক্ষ থেকে জানানো হয়।

হতদরিদ্র অসহায় বাবা গোলাম রব্বানীর সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে সে শুক্রবার দুপুরে জানায়, মুই গরিব মানুষ,মানুষের বাড়িতে কাজ করি খাও,কেমন করি বেটাটার চিকিৎসা করাম,মোর যে টাকা নাই,এই তহনে বাড়িতেই আছো, টেকা কড়ি নাই থাকাতে এলাও রংপুর যাবার পারো নাই। সে আরোও জানায় এটি তাদের দ্বিতীয় সন্তান। প্রথম সন্তান কন্যা, যার বয়স ৬ বছর।

এ ব্যাপারে দিনমুজুর পিতা গোলাম রব্বানী,মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও স্থানীয় দিনাজপুর-১ (বীরগঞ্জ-কাহারোল) আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য মনোরঞ্জন শীল গোপাল এবং এলাকাবাসী সহ দেশবাসীর কাছে শিশুটিকে বাচাঁতে উন্নত চিকিৎসার জন্য আর্থিক সহযোগীতা কামনা করেছেন।

আরও পড়ুন
Loading...