পর্যটন কেন্দ্রগুলোতে পর্যটকদের ভিড়

বর্তমান খবর,কমলগগঞ্জ(মৌলভীবাজার) থেকে :
করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে সরকারি নির্দেশনায় সারাদেশের মত কমলগঞ্জের পর্যটন কেন্দ্রগুলোতে প্রবেশ ও ঘোরাঘুরি নিষেধ ছিল। তারপরও পবিত্র ঈদ-উল ফিতরের দিন শুক্রবার ও ঈদের পরদিন বৃষ্টি উপেক্ষা করে স্বাস্থ্যবিধি না মেনেই লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যান, মাধবপুর লেক ও বীর শ্রেষ্ঠ সিপাহী হামিদুর রহমান স্মৃতি সৌধসহ পর্যটন কেন্দ্রগুলোতে পর্যটকের ঢল নেমেছিল।

ঈদে কমলগঞ্জের লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যান প্রবেশ ফটক বন্ধ থাকায় ভিতরে প্রবেশ করতে না পারলেও বৃষ্টি উপেক্ষা করে লাউয়াছড়া উদ্যানের সামনের সড়কে, মাধবপুর চা বাগান লেকসহ বিভিন্ন চা বাগানের চা প্লান্টেশন এলাকায় উপচেপড়া ভিড় ছিল পর্যটকদের। আগত পর্যটকরা মানেননি কোন স্বাস্থ্য বিধি ও কোনো বাঁধা। ফলে মাধবপুর লেক এলাকায় শুক্রবার ঈদের দিন দুপুরের পর থেকে এবং ঈদের পরের ২দিন মোটরসাইকেল, প্রাইভেট কার, সিএনজি অটো নিয়ে আসা পর্যটকদের ছিল অবাধে দল বেধে প্রবেশ আর ঘোরাঘুরি।

একই অবস্থা ধলই চা বাগানে বীর শ্রেষ্ঠ সিপাহী হামিদুর রহমান স্মৃতি সৌধ এলাকা, শমশেরনগর চা বাগানের লেক, শমশেরনগর চা বাগান গল্ফ মাঠ, ফুলবাড়ি চা বাগানসহ বিভিন্ন চা বাগানের পাহাড়ি উঁচু নিচু এলাকায় সব বয়সী পর্যটকদের ঘোরাঘুরি। কেউ কেউ পিকআপ ভ্যান গাড়িতে মাইক লাগিয়ে নাচ গান করতে দেখা যায়।

মাধবপুর চা বাগান লেকের ফটকে পর্যটকদের ব্যবহৃত যানবাহন আটকানোর চেষ্টা করলেও পর্যটকরা কোন প্রকার বাঁধা মানেন নি। রোববার দুপুরে লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যান এলাকা ঘুরে দেখা যায় উদ্যানের প্রধান ফটক তালাবদ্ধ থাকায় ও নিরাপত্তাকর্মীদের সতর্কতায় কোন পর্যটক ভেতরে প্রবেশ করতে পারেননি।

আরও পড়ুন
Loading...