দশ কেজি ওজন বাড়াতে হয়েছিল চরিত্রের প্রয়োজনে – সাইয়ামি খের

বর্তমান খবর ডেস্ক : কেরিয়ারের শুরুতে ফিচার ফিল্মে অভিনয় করলেও, ওটিটি-তে এবছর ধারাবাহিকভাবে ভাল পারফরম্যান্স করেছেন সাইয়ামি খের। ‘ব্রিদ: ইনটু দ্য শ্যাডোজ়’ বা ‘স্পেশ্যাল অপস’-এর মতো সিরিজ় ছাড়াও প্রশংসা কুড়িয়েছেন অনুরাগ কশ্যপের ওয়েব মুভি ‘চোকড’-এ। এই বছরটা বেশ ভাল কেটেছে তাঁর। নিজেও স্বীকার করলেন সে কথা,‘‘পেশাগত দিক থেকে বেশ স্যাটিসফায়িং।

গত দু’বছর ধরে যে কাজগুলো করছিলাম, সেগুলো রিলিজ় হল। প্যানডেমিকের সময়ও লোকে বাড়িতে বসে আমার কাজ দেখেছেন। কিন্তু আমার টিমের সঙ্গে সেলিব্রেট করতে পারলাম না!’’ চোকড-এ তিনি পুরোপুরি ডি-গ্ল্যাম লুকে! ‘‘মিরজ়িয়াঁ-র একবছর পরেই ছবিটার অফার দিয়েছিলেন অনুরাগ স্যর। কিন্তু উনি অন্য প্রজেক্টে ব্যস্ত থাকায় কাজ শেষ করতে দেরি হয়। উনি একেবারেই আগে থেকে কোনও প্রস্তুতিতে বিশ্বাস করেন না। দশ কিলো ওজন বাড়াতে হয়েছিল আমায়! কারণ, চরিত্রে আমার চেয়ে বেশি বয়সের একজন মায়ের ভূমিকায় অভিনয় করেছিলাম। কিন্তু এছাড়া আর কোনও প্রস্তুতি ছিল না। ওঁর সঙ্গে কাজ করা খুব ‘লিবারেটিং’, স্বতঃস্ফুর্ত অভিজ্ঞতা। ইম্প্রোভাইজ় করার পুরো স্বাধীনতা দেন উনি। ‘ব্রিদ’-এও এরকম চরিত্র আমি আগে কখনও করিনি।

ময়ঙ্ক (পরিচালক)-এর ক্ষেত্রে আবার আমার রেফারেন্স ছিল জুলিয়া রবার্টসের প্রেটি ওম্যান। কয়েকবার স্ক্রিপ্ট রিডিং আর ওয়র্কশপ হয়েছিল পুরো টিমের সঙ্গে। ব্যস, ওটুকুই! ময়ঙ্ক, অভিষেক (বচ্চন) সবার সঙ্গেই কাজ করা বেশ সহজ,’’ বললেন তিনি। ‘মিরজ়িয়াঁ’-র পরে সেভাবে আর দেখা যায় নি তাঁকে, কিন্তু ডিজিট্যাল প্ল্যাটফর্ম দিয়ে একরকম কামব্যাকই করলেন সাইয়ামি। ‘‘এই প্ল্যাটফর্মগুলো কতজনের জন্য নতুন রাস্তা খুলে দিয়েছে!

আমার প্রথম ছবি অত ভাল চলে নি, তার পরে ভাল অফারও পাই নি, কিন্তু এই একবছরে ব্যাঙ্কার মা, র এজেন্ট, এসকর্ট…কতরকমের চরিত্র করলাম। সবই তো ওটিটি-র সৌজন্যে। আই অ্যাম ভেরি গ্রেটফুল। আমি নিজে ‘পাতাল লোক’, ‘মির্জ়াপুর’, ‘দ্য ক্রাউন’ বিঞ্জ ওয়াচ করলাম।’’ ওটিটি-তে সেন্সরশিপের পক্ষে তিনি কোনওদিনই নন, বরং ক্রিয়েটিভ ফ্রিডমের পক্ষে তিনি।

ছোটবেলা থেকেই খেলাধুলোয় প্রবল উৎসাহী। কলেজে পড়ার সময় থেকে অভিনয়ের প্রতি আগ্রহ জন্মায়। ‘‘ট্র্যাভেল করতে পারব, কতরকমের জীবন বাঁচতে পারব চরিত্রের মধ্যে দিয়ে…থিয়েটার এগুলোই শিখিয়েছিল। তারপর ধীরে ধীরে ফিল্মের জন্য অডিশন দিতে শুরু করি। তবে একদম ছোট থেকেই এক্সারসাইজ়, খেলাধুলো আমার সহজাত। ফুল ম্যারাথনও করেছি। শুধু ফিটনেসের জন্য নয়, মন ভাল রাখতেও স্পোর্টসের কোনও বিকল্প নেই।’’

আরও পড়ুন
Loading...