ঝিনাইদহে এক ইউপি চেয়ারম্যান বরখাস্ত

বর্তমান খবর,ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ
সদর উপজেলার ৬ নং গান্না ইউনিয়ন পরিষদের চেয়াম্যান নাসির উদ্দিন মালিথাকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়।

ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা জাকির হোসেন শান্তি মার্ডারের ঘটনায় কারাগারে যাওয়ায় ইউনিয়ন পরিষদ আইন ২০০৯ এর ধারা ৩৪(১) অনুযায়ী বরখাস্ত করা হয়েছে।

স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের উপসচিব আবু জাফর রিপন স্বাক্ষরিত স্মারক নং ৪৬.০০.৪৪০০.০১৭.২৭.০০২.২০২১-৪২৬ এক প্রজ্ঞাপনে এই আদেশ দিয়েছেন। ১৭ মে তিনি এই প্রজ্ঞাপনে স্বাক্ষর করেন।

ঝিনাইদহ স্থানীয় সরকার অধিদপ্তরের উপপরিচালক মোঃ ইয়ারুল ইসলাম(উপসচিব) জানান,আমরা গত ১৭ তারিখে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় থেকে এই বিষয়ের প্রজ্ঞাপন পেয়েছি। ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য গত ২৪ মে ঝিনাইদহ সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে প্রেরণ করা হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার অবিলম্বে এই আদেশ কার্যকর করবেন। প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ রয়েছে,জনৈক জাকির হোসেনের মার্ডার এসটিসি ১০৯/১১ ও এসসি ১৪৫/১৩ মামলায় কারাগারে থাকায় প্রশাসনের দৃষ্টি কটূ হওয়ায় জেলা প্রশাসক ব্যবস্থা নিতে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় বরাবর সুপারিশ করেন।

জানা গেছে, ২০০৯ সালের ৭ জুলাই গান্না বাজার থেকে কাশিমপুর গ্রামে নিজ বাড়িতে ফেরার সময় বোমা হামলার আহত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকার একটি হাসপাতালে ৯ জুলাই রাতে মারা যান। এই হত্যাকাণ্ডে ইউপি চেয়ারম্যান নাসির হত্যাকারীদের টাকা জোগান সহ মূল ইন্ধনদাতা হিসাবে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেয় মামলায় গ্রেফতারকৃত অন্য ৩ আসামি।

২০১০ সালের ২৪ অক্টোবর পুলিশ মামলায় নাসির উদ্দিন মালিতা জড়িত ও ইন্ধনদাতা মর্মে চার্জশিট জমা দেয় আদালতে। মামলার তথ্য গোপন রেখে নাসির উদ্দিন মালিথা ২০১৬ সালের ইউপি নির্বাচনে নৌকা প্রতিকে অংশগ্রহণ করেন। বর্তমানে তিনি এই মামলায় হাইকোর্টের জামিনে রয়েছেন।

প্রজ্ঞাপন পাওয়ার কথা নিশ্চিত করেছেন ঝিনাইদহ সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার এসএম শাহীন। তিনি জানান,অবিলম্বে এই আদেশ কার্যকর হবে।

আরও পড়ুন
Loading...