প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ এর বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির শুভ উদ্বোধন

বর্তমান খবর,বিশেষ প্রতিনিধি :
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ এর উদ্যোগে ১৭ জুন ২০২১ইং,বৃস্পতিবার বেলা ১১ টায় সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে (কালীমন্দির গেট সংলগ্ন) বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির শুভ উদ্বোধন করা হয়েছে।

বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ-এর বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক মোঃ দেলোয়ার হোসেন। তিনি বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এই সোহরাওয়ার্দী উদ্যানটি তৈরী করেছিলেন। তিনি ১৯৭২ সালের ১৬ জুলাই নিজ হাতে নারিকেল গাছের চারা রোপণ করার মধ্য দিয়ে এই উদ্যানের কার্যক্রম শুরু হয়েছিল।

যার হাত ধরে এই উদ্যানের সৃষ্টি সেই জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং স্বাধীনতা সংগ্রামের ইতিহাস ঐতিহ্য তুলে ধরার কাজ চলমান। সেটি বাস্তবায়ন করার জন্য কয়েকটি বৃক্ষ কর্তন করা হয়েছিল। আমরাও চাই না জননেত্রী শেখ হাসিনা ও চান না কোন বৃক্ষ কর্তন করা হোক! কাজের প্রয়োজনে করা হয়েছিল! প্রতিজ্ঞা রয়েছে এর চেয়ে বেশি পরিমান বৃক্ষ আমরা রোপন করে দিব! তারপরও সমালোচনা হয়েছে! যারা সমালোচক তারা কখনো বৃক্ষরোপন করতে আসে নি!

আমরা শুধু এই উদ্যানে নয় জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে সারাদেশে বৃক্ষরোপন করে চলেছি। এই উদ্যানে দামী বৃক্ষ কর্তন করে জিয়ার নামে শিশু পার্ক করা হয়েছে তখন পরিবেশ আন্দোলন ও ছিল না প্রতিবাদও ছিল না!

চন্দ্রিমা উদ্যান ধবংস করে জিয়ার মাজার বানানো হয়েছে! সেখানে জিয়ার লাশ আছে কিনা প্রশ্ন সাপেক্ষ! ধানমন্ডিতে কৃষ্ণ চূড়ায় সু শোভিত ছিল! গাছের ফাঁক দিয়ে গুলি করতে পারে এই বুদ্ধি যখন দিয়েছে তখন জিয়া সারাদেশে গাছ কর্তন করেছে! তখন পরিবেশ আন্দোলনের নামে কেউ কথা বলেনি!

মুজিব শতবর্ষে আমরা ৩ কোটি গাছের চারা রোপণ করবো। গতবছর আমরা এক কোটি গাছের চারা রোপণ করেছি। বজ্রপাতে মানুষের মৃত্যু প্রতিরোধে পরিবেশ বিজ্ঞানীদের মতে তালগাছ রোপন করার আহবান জানান। জননেত্রী শেখ হাসিনা প্রাকৃতিক দূর্যোগ প্রবণ ৪৪ টি দেশের প্রধান হিসাবে কাজ করছেন।

জলবায়ু সম্মেলনে জননেত্রী শেখ হাসিনা বিশ্ববাসীর জন্য বিশ্বের তাপমাত্রা ১ দশমিক ৫ এর মধ্যে রাখার প্রস্তাব দিয়েছেন। জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে সারাদেশে বৃক্ষরোপন উৎসবে পরিণত হয়েছে। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি জননেতা নির্মল রঞ্জন গুহ।

তিনি বলেন জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশিত পথে আমাদের পথচলা। জননেত্রী শেখ হাসিনা সকল নেতাকর্মীকে ৩টি করে বৃক্ষরোপন করার আহবান জানিয়েছেন। জেলা উপজেলা মহানগরে বৃক্ষরোপন অব্যাহত থাকবে! জেলা এবং বিভাগীয় দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতৃবৃন্দ তত্ত্বাবধান করবেন।

যে জেলায় বেশি বৃক্ষরোপণ করবে তাদের এওয়ার্ড দেওয়া হবে! এ বছর আমরা ১০ লক্ষ বৃক্ষরোপণ করবো। কাজের কম্পিটিশন থাকতে হবে। কর্মের মধ্য দিয়ে স্বেচ্ছাসেবক লীগ প্রমান করেছে, স্বেচ্ছাসেবক লীগ পারে, আগামী দিনেও পারবে।

অনুষ্ঠানের সঞ্চালনা করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক জননেতা একেএম আফজালুর রহমান বাবু তিনি বলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনা বৈশ্বিক জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকি মোকাবেলায় পরিবেশবাদী আন্দোলনে মূখ্য ভূমিকা পালন করছেন। তিনি ঝুঁকিপূর্ণ ৪৪ টি দেশের প্রতিনিধিত্ব করছেন। অত্যান্ত বিচক্ষণতার সাথে জাতিসংঘে তিনি কাজ করে যাচ্ছেন।

জলবায়ু সম্মেলনে সারা পৃথিবীর তাপমাত্রা ১.৫ এর মধ্যে রাখার দাবি করেছেন বিশ্বনেতা বাংলাদেশের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনা। তিনি সংগঠনের প্রতিটি নেতাকর্মীকে নূন্যতম তিনটি করে বৃক্ষরোপন করার মাধ্যমে জননেত্রী শেখ হাসিনার পরিবেশবাদী আন্দোলনে অংশগ্রহণের আহবান জানান।

এ সময় সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন সংগঠনের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক আহমদ উল্লাহ জুয়েল। আরও উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় ও মহানগরের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী।

আরও পড়ুন
Loading...