Ultimate magazine theme for WordPress.

বেনাপোলে মাদক নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তরের…

কমলগঞ্জে স্বামীকে অচেতন করে স্ত্রীর পরকিয়ায়…

ঘোড়াঘাটে জরাজীর্ণ বেইলি ব্রীজের উপর দিয়ে চলছে ভারী যানবাহন

0 ৮২

বর্তমান খবর,ঘোড়াঘাট(দিনাজপুর)প্রতিনিধিঃ
দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলা ও গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলার যোগাযোগের সবচেয়ে সহজ ও দ্রæততম মাধ্যম করতোয়া মহিলা নদীর উপরে নির্মীত বেইলি ব্রীজ। কিন্তু জরার্জীণ এই বেইলি ব্রিজটি দিয়ে প্রতিনিয়ত ভারী যানবাহন চলাচলের কারনে ঘটতে পারে যে কোন সময় বড়ো দুর্ঘটনা।

নির্মাণের পর দীর্ঘদিন অতিবাহিত হলেও সড়ক ও জনপথ বিভাগের গাফিলতির কারনে মেয়াদউত্তীর্ণ এ বেইলী ব্রিজটি মেরামতের কোন খোঁজ খবর নেই। বিকল্প সড়ক না থাকায় প্রতিদিন বাধ্য হয়ে ঝুঁকিপূর্ণ এ সেতু দিয়ে চলাচল করছে ভারী যানবাহনসহ হাজার হাজার যাত্রী ও কোমলমতি শিক্ষার্থীরা।

ঝুঁকিপূর্ণ সেতুর উপর দিয়ে ১৫/২০ টন ওজনের মালামাল নিয়ে অবাধে চলাচল করছে ট্রাকসহ ভারী যানবাহন। জানা যায়, ১৯৯৮ ইংসালে করতোয়া নদীর উপর এই বেইলি ব্রীজটি নির্মাণ করা হয়। দিনাজপুর জেলার সঙ্গে রংপুর ও গাইবান্ধা জেলায় যাতায়াতের মাধ্যম এই বেইলি ব্রিজটি। বেইলি ব্রিজটির বয়স অনেক হওয়ায় একটি গাড়ী ব্রীজে উঠলেই ঝন ঝন শব্দ হয়,মনে হয় এই বুঝি ভেঙ্গে পড়বে। ব্রীজের পাটাতনের অনেক নাটবল্টু ঢিল হয়ে খসে পড়েছে,এর ফলে লোহার পাত গুলো মধ্যে ফাঁক সৃষ্টি হয়েছে। এই ফাঁক গুলোর কারনে রিক্সা,ভ্যান ও বাইসাইকেলের চাকা ঢ়ুকে যেকোন সময় ঘটে যেতে পারে ভয়াবহ দুর্ঘটনা।

মাঝে মাঝে জোড়াতালি দিয়ে বেইলি ব্রীজটি সংস্কার করে চলার উপযোগী করলেও কিছু দিন পরে পূর্বের অবস্থায় দেখা যায়। অপরদিকে ব্রীজটি অতি সরু হওয়ায় এক সঙ্গে দুটি গাড়ি ক্রোস করতে পারে না। ব্রিজটি একমুখী হওয়ায় ট্রাক,বাসসহ বড় যানবাহন পারাপারের সময় উভয় প্রান্তে সৃষ্টি হয় যানজটের। এতে করে ভোগান্তির শিকার হচ্ছে চালকসহ এ পথের যাত্রীরা।

এই বিষয় নিয়ে এলাকাবাসীদের সঙ্গে কথা বললে তারা জানান,প্রায় দুই যুগ আগে সড়ক ও জনপদ বিভাগ তৈরী করে এই সেতু। ঘোড়াঘাট উপজেলা ও আশেপাশে উপজেলা সহ রংপুর,গাইবান্ধা জেলার যোগাযোগ মাধ্যম এই ব্রীজটি। সময়ের সাথে সাথে অনেক কিছুর পরিবর্তন হলেও বেইলি ব্রিজটির অবস্থা দিনের পর দিন করুন হয়ে পরছে,যেন দেখার কেউ নেই।

ঘোড়াঘাট উপজেলা প্রকৌশলী মো: নূরনবী খাঁনের সঙ্গে কথা বলে তিনি জানায়,এই ব্রীজটি সড়ক ও জনপদ বিভাগের অওতায়, আমাদের অওতায় নেই।

দিনাজপুর সড়ক ও জনপদ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী সুনীতি চাকমার সাথে এই বিষয় নিয়ে মুঠোফোনে অনেকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি। পথচারী ও ঘোড়াঘাট উপজেলা বাসী ১১দিনাজপুর-৬ আসনের সংসদ সদস্য শিবলী সাদিক এমপি ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে অকুল আবেদন করেন যে ব্রীজটি অপসারণ করে অতিদ্রুত সেখানে আর সিসি ব্রীজ নির্মাণ করে প্রাণ হানীর আশঙ্কা থেকে রক্ষা করতে জোর দাবী জানায়।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published.