খন্দকার আলকাছ ও আমিনা হাসপাতাল উদ্বোধন

সরকারী হাসপাতালের পাশাপাশি যতবেশী বেসরকারী হাসপাতাল নির্মাণ হবে সরকারী হাসপাতালে রোগীর চাপ কমবে…….পরিকল্পনামন্ত্রী মান্নান

বর্তমান খবর,সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি :
পরিকল্পনামন্ত্রী আলহাজ¦ এম এ মান্নান বলেছেন,হাওরের জেলা সুনামগঞ্জের ত্রিশলাখ মানুষের স্বাস্থ্যসেবার জন্য প্রতিটি উপজেলায় একটি করে সরকার ৫০ শয্যার হাসপাতাল নির্মাণ করেছে।

সরকারী হাসপাতালের পাশাপাশি যতবেশী বেসরকারী হাসপাতাল নির্মাণ হবে ততোবেশী সরকারী হাসপাতালে রোগীর চাপ কমবে। এই যে ৭তলা বিশিষ্ঠ খন্দকার আলকাছ ও আমিনা হাসপাতাল উদ্বোধনের মাধ্যমে কার্যক্রম শুরু হচ্ছে এটা হাওরবাসীর জন্য ভাল একটি কাজ।

কোন মানুষ প্রচুর সম্পদের মালিক হলে চলবে না এই সম্পদকে জনকল্যাণে কাজ লাগানোর ফলে দুই টাকা আয় হলে সেটা অন্যায় কিছু নয়। জনগন স্বাস্থ্যসেবা পেয়ে উপকৃত হলে দুই টাকা লাভ হবে সেটা অন্যায় কোনকিছু মনে করি না। আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার স্বাস্থ্যসেবা ঘরে ঘরে পৌছে দিতে সেই মহতি কাজগুলোকে স্বাদুবাদ জানান।

তিনি আরো বলেন, এই যে বেসরকারী খন্দকার আলকাছ ও আমিনা হাসপাতালে চিকিৎসাসেবা কার্যক্রম শুরু হতে চলেছে তিনি সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে খন্দকার আলকাছ উদ্দিনের পরিবারের সবাইকে ধন্যবাদ জানান।

বৃহস্পতিবার দুপুরে বিশিষ্ঠ সমাজসেবক আলকাছ উদ্দিন খন্দকার ও তার ছেলে সুনামগঞ্জ জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক খন্দকার মঞ্জুর আহমদ কর্তৃক সুনামগঞ্জ পৌরসভার নবীনগরে ৭তলা বিশিষ্ঠ খন্দকার আলকাছ ও আমিনা হাসপাতালের উদ্বোধন পরবর্তী সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী মান্নান এসব কথা বলেন।

খন্দকার আলকাছ ও আমিনা হাসপাতালের চেয়ারম্যান হাজী আলকাছ উদ্দিন খন্দকারের সভাপতিত্বে ও প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আলহাজ¦ খন্দকার মঞ্জুর আহমদের সঞ্চালনায় এ সময় উপস্থিত ছিলেন,জেলা প্রশাসক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন, সিভিল সার্জন ডা. শামস উদ্দিন তাহিরপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান করুণা সিন্ধু চৌধুরী বাবুল,সুনামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র নাদের বখত, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. জয়নাল আবেদীন, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. ইমরান হোসেন,সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. শহিদুর রহমান,জেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি রেজাউল করিম শামীম,সাংগঠনিক সম্পাদক শংকর চন্দ্র দাস,আইন বিষয়ক সম্পাদক এড. আব্দুল করিম,শিক্ষা ও মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক সীতেশ তালুকদার মঞ্জু,শ্রম বিষয়ক সম্পাদক এড. আজাদুল ইসলাম রতন,সুনামগঞ্জ জজকোর্টের কারী পাবলিক প্রসিকিউটর(এপিপি) ও সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী এড. দেবাংশু শেখর দাস,বিশিষ্ঠ ব্যবসায়ী মো. জিয়াউল হক, সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. সৈকত দাস,জেলা যুযবলীগের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক আসাদুজ্জামান সেন্টু,সিনিয়র সদস্য সবুজ কান্তি দাস,সাবেক ভারপ্রাপ্ত মেয়র নুরুল ইসলাম বজলু,সদর যুবলীগের সভাপতি এহসান আহমদ উজ্জল,মাওলানা আব্দুল কাইয়ূম,জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি দিপংঙ্কর কান্তি দে প্রমুখ।

আরও পড়ুন
Loading...