কালীগঞ্জে ধরন্ত শষার ক্ষেত কেটে সাবাড়

বর্তমান খবর,ঝিনাইদহ প্রতিনিধি : ঝিনাইদহের কালীগঞ্জের পল্লীতে এক কৃষকের ধরন্ত শষার ক্ষেত কেটে সাবাড় করেছে কে বা কারা। শনিবার দিবাগত রাতে উপজেলা মালিয়াট ইউনিয়নের গয়েশপুর গ্রামের মাঠে এই ক্ষেত কেটে দেয়।

রোববার সকালে শষা তুলতে গিয়ে দেখতে পায় গাছগুলো শুকিয়ে যাচ্ছে। আজ তার আট কাঠার এই ক্ষেত থেকে চার মন শষা ওঠার কথা ছিল। ক্ষতিগ্রস্ত শষা ক্ষেতের মালিক গয়েশপুর গ্রামের আনসার আলীর ছেলে বাপ্পারাজ ওরফে বাপ্পি। এর আগেও গত এক বছরে তার চারবার বেগুন ও ফুলকপিসহ বিভিন্ন সবজি ক্ষেত কেটে দেয় দুর্বৃত্তরা।

সংবাদ পেয়ে মালিয়াট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান একরামুল হক সংগ্রাম ও তত্বিপুর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ রফিকুল ইসলাম ক্ষতিগ্রস্ত ক্ষেত পরিদর্শন করেছেন। ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক বাপ্পি জানান, আমার এই জমিতে শষা চাষ করতে এখনো পর্যন্ত প্রায় ১০ হাজার টাকা খরচ হয়েছে। এখান থেকে আমি প্রায় ৫০ হাজার টাকা শষা বিক্রি করার আশা ছিল।

রোববারও চারমন শষা তোলার আশা করে মাঠে গিয়েছিলাম। ক্ষেতে গিয়ে দেখি কারা আমার জমির সব গাছ কেটে সাবাড় করে দিয়েছে। তত্বিপুর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই রফিকুল ইসলাম বিষয়টি চরম অমানবিক উল্লেখ করে জানান, লোকমুখে সংবাদ পেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত ক্ষেত পরিদর্শনে গিয়েছিলাম। তবে ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক কোন অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ দিলে অবশ্যই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরও পড়ুন
Loading...