কলেজ ছাত্র মাসুমের দুটি কিডনি অকেজো, চিকিৎসা বাবত ২৫ হাজার টাকা দেন উপজেলা চেয়ারম্যান

বর্তমান খবর,সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি :
মোহনা টেলিভিশনে সুনামগঞ্জের কলেজ ছাত্র আব্দুল্লাহ আল মাসুমের দুটি কিডনির অকেজোর সংবাদ প্রচারের পর তাকে তাৎক্ষনিক ২৫ হাজার টাকা দেয়ার ঘোষনা দেন সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান খায়রুল হুদা চপল।

মঙ্গলবার সকাল ৯টায় মোহনা টিভির সারাদেশের সংবাদে প্রচারিত মানবিক এই সংবাদটি দেখে তিনি বিকেলে মোহনা টিভির সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি কুলেন্দু শেখর দাসকে ফোন করে এই মানবিক সহায়তা প্রদানের কথা জানান। এছাড়াও সুনামগঞ্জের স্থানীয় কয়েকটি দৈনিক পত্রিকায় এই সংবাদটি গুরুত্ব দিয়ে প্রকাশ করা হয়েছে।

মাসুম সুনামগঞ্জ সরকারী কলেজ থেকে সম্প্রতি এইচ এস সি পরীক্ষায় অটো পাশ করেন। সে সদর উপজেলার কুরবান নগর ইউনিয়নের শাহপুর গ্রামের দরিদ্র পরিবারের হাজী মো. আব্দুর রশিদের ছেলে আব্দুল্লাহ আল মাসুম। গত কয়েকমাস ধরে ডাক্তারী পরীক্ষায় তার দুটি কিডনি অকেজো হওয়ার পর সে বর্তমানে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তাকে সুস্থ করে তুলতে তার সহপাঠি শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন জায়গাতে গিয়ে সমাজের বিত্তবানদের প্রতি সাহার্য্যর আবেদন জানান।

গত সোমবার সহপাঠিরা শহরের ট্রাফিক পয়েন্টে তার চিকিৎসায় সরকারের প্রধানমন্ত্রী ও সমাজের বিত্তবানদের সাহার্য্যের হাত প্রসারিত করার দাবীতে মানবন্ধন করেন। এমন মানবিক সংবাদটি মোহনা টেলিভিশনসহ স্থানীয় দৈনিক সুনামগঞ্জের খবর,দৈনিক সুনামকণ্ঠ,দৈনিক হাওরাঞ্চলের কথা,দৈনিক সুনামগঞ্জ প্রতিদিন,দৈনিক সুনামগঞ্জের সময়,ঢাকা প্রতিদিন,দৈনিক জালালবাদ,দৈনিক বসুন্ধরা পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হওয়ায় এই অসুস্থ শিক্ষার্থীর চিকিৎসা সেবায় ২৫ হাজার টাকা দেয়ার ঘোষনা দিয়েছেন সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা যুবলীগের আহবায়ক জনাব খায়রুল হুদা চপল।

খায়রুল হুদা চপল সম্প্রতি নিজ জন্মস্থান সুনামগঞ্জ থেকে ঢাকার নিজ বাসায় যাওয়ার পথে নরসিংদীতে সড়ক র্দূঘটনায় গুরুতর আহত হয়ে কিছুদিন হাসপাতালে থাকার পর বর্তমানে ঢাকার নিজ বাসায় ডাক্তারদের নিবিড় পর্যবেক্ষণে রয়েছেন। খায়রুল হুদা চপল এই অসুস্থ শিক্ষার্থীর পাশে দাড়াঁনোর জন্য সমাজের বিত্তবানদের প্রতি তিনি আহবান জানান।

আরও পড়ুন
Loading...