কমলগঞ্জে কৃষকের ধান কেটে দিল যুবলীগ

বর্তমান খবর,কমলগঞ্জ(মৌলভীবাজার)প্রতিনিধি:
কমলগঞ্জের পৌর এলাকার ৩ কৃষকের এক একর জমির ধান কেটে দিয়েছে উপজেলার যুবলীগ। কৃষকদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার বাস্তবায়ন ঘটাতে কেন্দ্রীয় যুবলীগের নির্দেশে তারা এই কার্যক্রম করেন।

শুক্রবার বেলা ১১টায় কমলগঞ্জ পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডের খুশালপুর এলাকায় কৃষক আজাদ মিয়া,ফারুক মিয়া ও শহীদ মিয়ার জমির ধান কেটে তারা বাড়িতে পৌছে দেন।
কমলগঞ্জ উপজেলার যুবলীগের আহবায়ক পৌর মেয়র মো. জুয়েল আহমেদ জানান, লকডাউনের তৃতীয় মেয়াদে শ্রমিক ও অর্থ সংকটের কারণে এক একর জমির পাকা ধান কাটতে পারছিলেন না পৌর এলাকার খুশালপুর গ্রামের কৃষক আজাদ মিয়াসহ তিন কৃষক। ক্ষেতেই ধান নষ্ট হওয়ার উপক্রম হচ্ছিল।

খবর পেয়ে শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে যুবলীগের নেতাকর্মীরা আমার নেতৃত্বে সেখানে যান। দলের প্রায় অর্ধ শতাধিক নেতাকর্মী কৃষক ওই তিন কৃষকের এক একর জমির ধান কেটে দেন। ধান কাটা কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত জেলা যুবলীগের সাধারন সম্পাদক সৈয়দ রেজাউল রহমান সুমন। পরে তারা কৃষকের ক্ষেতের ধান কেটে মাথায় করে কৃষকের বাড়িতে ধান পৌঁছে দেন।

যুবলীগ নেতাকর্মীরা পাকা ধান কেটে দেয়ায় কৃষক আজাদ মিয়া,ফারুক মিয়া ও শহীদ মিয়া অনেকটাই আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন। তারা বলেন, লকডাউনের মধ্যে ধান কাটার উপযুক্ত হলেও লকডাউনে শ্রমিক সংকটে পড়ি। এলাকায় যে শ্রমিক পাওয়া যায় তাদের মজুরি বেশি হওয়াতে ক্ষেতের ধান পাকার পরও তা কাটতে না পারায় ক্ষতির শঙ্কায় ছিলাম। আমার এ অসহায়ত্বের কথা শুনে যুবলীগ নেতা পৌর মেয়র জুয়েল ভাই দলের নেতাকর্মী সাথে নিয়ে ক্ষেতের ধান কেটে দেন।

উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক পৌর মেয়র জুয়েল আহমেদ বলেন, করোনাকালীন এই দূর্যোগকালীন সময় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কৃষকদের পাশে দাঁড়ানোর যে নির্দেশনা দিয়েছেন তার বাস্তবায়ন ঘটাতেই কেন্দ্রীয় যুবলীগের নির্দেশে আজ কৃষক আজাদ মিয়াসহ তিন কৃষকের ধান কাটার মধ্যদিয়ে কমলগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের ধান কাটার কর্মসূচির উদ্বোধন করা হল। কৃষকের ধান কেটে দেওয়ার যুবলীগের এই কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

আরও পড়ুন
Loading...