উদ্দীপন-প্রোব হেলথকেয়ার স্বাস্থ্যসেবার অঙ্গীকার নিয়ে জনগণের দোরগোড়ায়

বর্তমান খবর : ‘আমার স্বাস্থ্য, আমার সুরক্ষা’ এ প্রতিপাদ্যে বিনামূল্যে স্পেশাল হেলথ চেকআপের আয়োজন করে ‘উদ্দীপন-প্রোব হেলথকেয়ার’। মঙ্গলবার সকাল ৯টা থেকে বিকেল ২টা পর্যন্ত ঢাকার আদাবর থানার বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাদের মাঝে এ সেবা প্রদান করা হয়। এ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন আদাবর থানার দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কাজী শাহীদুজ্জামান।

উদ্বোধনকালে তিনি বলেন, ‘চিকিৎসা নিয়ে জনমনে সব সময়ই আতঙ্ক কাজ করে। সে সঙ্গে ভোগেন সিদ্ধান্তহীনতায়। থাকে আর্থিক টানাপড়েন। যার কারণে ভরসার জায়গাটা খুঁজে পান না। উদ্দীপন-প্রোব হেলথকেয়ার এসব ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারবে বলে আমি আশাবাদী।’ এ সময় উক্ত থানার বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা এবং উদ্দীপনের নির্বাহী পরিচালক বিদ্যুত কুমার বসু,পরিচালক (ফিল্ড অপারেশন অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট) জনাব সগীর হোসেন এবং ঊর্ধ্বতন সহকারী পরিচালক জনাব ফয়সল মুহম্মদ ওয়াহীদ উপস্থিত ছিলেন।

এরপর শুরু হয় স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রম। বিনামূল্যে স্পেশাল হেলথ চেকআপ প্যাকেজের মধ্যে ছিল Doctor Consultancy, ECG, FBS/RBS, CBC, Lipid Profile, Liver Profile Ges Kidney Profile.

এছাড়া, হাইপারটেনশন, ডায়াবেটিস, হৃদরোগ, কিডনি, ক্যান্সার প্রভৃতি রোগে করণীয় এবং পরামর্শ টেলিমেডিসিন অথবা সরাসরি উদ্দীপন-প্রোব হেলথকেয়ারের চিকিৎসকদের সহযোগিতা নিতে পারবেন। উদ্দীপন-প্রোব হেলথকেয়ার বিশ্বাস করে সচেতনতার অভাবে যারা স্বাস্থ্যঝুঁকিতে রয়েছেন তারা সচেতন হবেন এবং আশাকরি এ কার্যক্রমের মাধ্যমে অন্যরাও সচেতন হবেন।

উল্লেখ্য, উদ্দীপন একটি বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা। অনগ্রসর ও সুবিধাবঞ্চিত জনগোষ্ঠীর সেবায় আরো এক ধাপ এগিয়ে উদ্দীপন। উদ্দীপন-প্রোব হেলথকেয়ার স্বাস্থ্যসেবার অঙ্গীকার নিয়ে জনগণের দোরগোড়ায়।

বিশ্বব্যাপি চলছে করোনা মহামারীর দ্বিতীয় ঢেউ। করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় অস্তিত্ব সংকটে মানব জাতি। এ পরিস্থিতিতে শারীরিক ও মানসিক স্বাস্থ্যের বিষয়টি বিবেচনায় নিয়েই উদ্দীপন-প্রোব হেলথকেয়ার সেবার ব্রত নিয়ে এগিয়ে এসেছে। ভারতীয় পার্টনার প্রোব এবং এর রয়েছে এক্সাটার্নাল কোয়ালিটি কন্ট্রোল পার্টনার সিএমসি ভেলোর, ইন্ডিয়া। উদ্দীপন-প্রোব হেলথকেয়ারে রয়েছে অভিজ্ঞ মেডিকেল টিম এবং বিশ্বমানের নিজস্ব প্যাথলজিক্যাল ল্যাবরেটরি।

এছাড়াও, এ স্বাস্থ্যসেবার আওতায় রয়েছে স্বাস্থ্য সচেতনতামূলক বিভিন্ন ধরনের ক্যাম্পেইন। যেমন : জরায়ু ক্যান্সার, থ্যালাসেমিয়া ক্যাম্পেইন। স্বাস্থ্যসেবা নিয়ে প্রতিটি গ্রামে কাজ করার জন্য হেলথ ভলান্টিয়ার ক্লাব ও ব্লাড ডোনেশন ক্লাব গঠন করারও উদ্যোগ নিয়েছে এ প্রকল্পটি।

আরও পড়ুন
Loading...